প্রকল্পের নাম: সমাজসাথী

স্বনির্ভর গােষ্ঠীর সদস্য/ সদস্যাদের ব্যক্তিগত দুর্ঘটনা বীমার আওতায় নিরাপত্তা দেয়াই (১৮-৬০ বছর বয়স পর্যন্ত) এই প্রকল্পের উদ্দেশ্য। দুর্ঘটনার সময় উদ্ভূত পরিস্থিতিতে আচমকা যে অর্থনৈতিক সংকট তৈরি হয়, মােকাবিলা করতেই স্বনির্ভর গােষ্ঠীর সদস্য ও তাঁর পরিবারের পাশে দাঁড়িয়েছে সরকার। 

• কারা প্রকল্পের সুবিধা পাবে: এই প্রকল্পে প্রতিটি স্বনির্ভর গােষ্ঠীর সদস্য বা সদস্যা বিনামূল্যে বছরে সর্বাধিক ২ লক্ষ টাকার দুর্ঘটনা বিমা পরিষেবা পাবেন। প্রকল্পের আওতায় দুর্ঘটনাজনিত চিকিৎসার খরচ, হাসপাতালে ভর্তির খরচ ছাড়াও চিকিৎসার সময় আরও কিছু সুযােগ সুবিধা পাওয়া যায়। কাজে অনুপস্থিত থাকার দরুণ দৈনিক পারিশ্রমিক থেকে বঞ্চিত হন সেই ব্যক্তি। এর ক্ষতিপূরণও দেওয়া হয় সমাজসাথী প্রকল্পে। এছাড়া বিমা সংস্থা সংশ্লিষ্ট সুবিধাভােগী ব্যক্তিকে নানাভাবে সাহায্য করবে—তথ্য, শিক্ষা, যােগাযোগ, নাম নথিভুক্ত করানাে, স্মার্ট কার্ড সরবরাহ করা ইত্যাদি। বিমা প্রকল্পটি রাজ্যের সবক'টি জেলাতেই কাজ করবে।

২০১৭ সাল থেকে এই প্রকল্পের সুযোগসুবিধা আরও কিছু বাড়ানাে হয়েছে। বর্তমানে প্রাপ্ত সুবিধাঞ্জলি নিম্নরূপ --
ক) সুবিধাভােগীর মৃত্যুতে ২ লক্ষ টাকা আর্থিক ক্ষতিপূরণ দেওয়া হবে। 
খ) দুর্ঘটনায় স্থায়ী অক্ষমতার শিকার হলেও তিনি ২ লক্ষ টাকার আর্থিক ক্ষতিপূরণ পাবেন। 
গ) দুর্ঘটনার ফলে আংশিক অক্ষমতা দেখা দিলে, অক্ষমতার মাত্রা অনুযায়ী ক্ষতিপূরণ দেওয়া হবে।
ঘ) বিমাকৃত ব্যক্তির মৃত্যুতে তাঁর ছেলেমেয়ের জন্য শিক্ষার খরচ হিসেবে ২৫ হাজার টাকা পর্যন্ত দেওয়া হবে। 
ঙ) দুর্ঘটনার পরে চিকিৎসার জন্য বিমাকৃত ব্যক্তি পাবেন ৬০ হাজার টাকা। 
চ) দুর্ঘটনাজনিত কারণে ডে কেয়ার বিভাগে চিকিৎসায় ৫ হাজার টাকা পর্যন্ত বিনামূল্যে চিকিৎসার সুযােগ পাওয়া যাবে। 
ছ) হাসপাতালে ভর্তিকালীন অবস্থায় দৈনিক ১০০ টাকা করে (সর্বাধিক ৩০ দিনের) সাহায্য পাওয়া যাবে। 
জ) দুর্ঘটনায় বিমাকৃত ব্যক্তির মৃত্যু হলে তাঁর শেষকৃত্য সম্পন্ন করার জন্য ২৫০০ টাকা অতিরিক্ত সাহায্য দেওয়া হবে তাঁর পরিবারকে। 

ইছাকৃতভাবে নিজেকে আঘাত করা, নেশাগ্রস্ত অবস্থায় দুর্ঘটনা, অপরাধমূলক কাজের সঙ্গে যুক্ত থেকে দুর্ঘটনা ঘটলে এই বিমার আওতায় কোনও সুবিধা পাওয়া যাবে না।। 

স্মার্টকার্ড ব্যবহারের পদ্ধতি- স্বনির্ভর গােষ্ঠীর কোনও সদস্য দুর্ঘটনায় আহত হলে তাঁকে নথিভূক্ত হাসপাতালে নিয়ে যেতে হবে। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ কার্ড যাচাই করে প্যাকেজ রেট অনুযায়ী চিকিৎসার খরচ কার্ড থেকে কেটে নেবেন। চিকিৎসার খরচ কার্ডের প্রাপ্য টাকার বেশি হলে তা উপভ্যেক্তা বা স্বনির্ভর গােষ্ঠীকে দিতে হবে। কার্ড হারিয়ে গেলে ৩০ টাকা বিমা সংস্থার জেলা কার্যালয়ে জমা দিলে মিলবে নতুন কার্ড। 

• দপ্তর: স্বনির্ভর গােষ্ঠী ও স্বনিযুক্তি দপ্তর

• যােগাযােগ: প্রয়ােজনে যােগাযােগ করা যেতে পারে স্বনির্ভর ও স্বনিযুক্তি দপ্তরের অধীন রােজগার নিগমের সঙ্গে।
(জেনে নিন, পশ্চিমবঙ্গের ৪১ টি জনকল্যাণমূলক সরকারি প্রকল্পের প্রাপ্ত সুযোগ সুবিধে কোথা থেকে কিভাবে পেতে পারেন)

Comments

Popular posts from this blog

প্রকল্পের নাম: সবলা

প্রকল্পের নাম: আমার ফসল, আমার গাড়ি